আটকের পর ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদক কারবারি নিহত

bonduk.jpg

নিজস্ব প্রতিবেদক। 

কক্সবাজারের টেকনাফে পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধের ঘটনায় আব্দুল মালেক মিস্ত্রী (৩৮) নামের এক মাদক ব্যবসায়ী নিহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার (১০ জুলাই) রাতে এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

নিহত ব্যক্তি টেকনাফ সদর ইউনিয়নের নতুন পল্লান পাড়ার মৃত মকবুল আহমদ মিস্ত্রীর ছেলে। এ ঘটনায় পুলিশের অন্তত ৩ সদস্য আহত হয়েছেন। পুলিশের দাবি নিহত ব্যক্তি একাধিক মাদক ও অস্ত্র মামলা পলাতক আসামি।

টেকনাফ মডেল থানার ওসি প্রদিপ কুমার দাশ জানান, বুধবার (১০ জুলাই) রাত সাড়ে ৯টা নাগাদ টেকনাফ বাস টার্মিনাল এলাকা থেকে উপজেলার সদর ইউনিয়নের নতুন পল্লান পাড়ার একাধিক অস্ত্র ও মাদক মামলার পলাতক আসামি আব্দুল মালেককে আটক করা হয়। তার দেয়া তথ্য মতে বৃহস্পতিবার রাতের প্রথম প্রহরে থানা পুলিশের একটি দল একই ইউনিয়নের লেঙ্গুরবিল মাঠ পাড়া পাহাড়ে মাদক ও অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার অভিযানে যায়। এ সময় তার সহযোগীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছুঁড়ে তাকে ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা চালায়।

এতে পুলিশের এএসআই রামধন (৩৯), কনষ্টেবল রাজু মজুমদার (২৭) ও আব্দুস শুকুর (২২) আহত হয়। পাল্টা জবাবে পুলিশ ৫০ রাউন্ড গুলি ছুঁড়লে দুর্বৃত্তরা পিছু হটে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে ঘটনাস্থল তল্লাশী করে ২ টি এলজি, ১৩ রাউন্ড তাজা কার্তুজ, ২১ রাউন্ড কার্তুজের খোসা ও ৫ হাজার পিস ইয়াবাসহ গুলিবিদ্ধ আব্দুল মালেককে উদ্ধার করে টেকনাফ সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার পাঠানো হয়। রাতে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে পৌছালে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

তিনি আরও জানান, তদন্ত সাপেক্ষে দোষীদের বিরুদ্ধে সরকারি কাজে বাঁধা, পুলিশের ওপর হামলার অভিযোগে সংশ্লিষ্ট ধারায় মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে।

আপনার মন্তব্য দিন

Share this post

scroll to top