সোমবার, ২১ অক্টোবর ২০১৯, ০২:০৪ পূর্বাহ্ন

ইনানী সৈকতে পর্যটকদের উপচে পড়া ভিড়

আলোকিত টেকনাফ
  • আপডেট সময় রবিবার, ১৭ মার্চ, ২০১৯
  • ১৪ বার পঠিত

জাহাঙ্গীর আলম, ইনানী:

টানা ছুটিতে ইনানী সৈকতে পর্যটকদের উপচে পড়া ভিড় পড়েছে। প্রচন্ড গরমও হার মানাতে পারেনি ভ্রমনপিসাপুদের আনন্দে। পর্যটনের ভরা মৌসুম শেষ হলেও পর্যটক আগমন অব্যাহত থাকায় দারুণ খুশি ব্যবসায়ীরা। তবে সাগর উত্তাল থাকায় পর্যটকদের সমুদ্রস্নানে বার বার সতর্ক হওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন বীচ কর্মীরা
উত্তাল সাগর, উত্তাল মানুষ। টানা ছুটিতে সৈকতে পর্যটকের উপচে পড়া ভিড়। আনন্দ আর উচ্ছাসে মাতোয়ারা পুরো সাগর তীর। প্রচন্ড রোদও হার মানাতে পারছে না এসব পর্যটকদের যেন সাগর তীরই তাদের কাছে সবকিছু।
পর্যটকরা বলেন শুক্র-শনি-রবি ছুটি, তাই মানুষ এসেছে প্রচুর আমাদের সমুদ্র সৈকত এতই যে সুন্দর সে কারণে অনেক কষ্ট করে আমরা এত দূর থেকে ঘুরতে আসি
শীত শেষ হলেও ভরা মৌসুম টানা ছুটিতে কক্সবাজারের পর্যটকদের। বিভিন্ন পয়েন্টে ঘুরাঘুরি করে বেশ মজা পাচ্ছেন ভ্রমনপিসাসুরা
তাই দারুণ খুশি সৈকত এলাকার ব্যবসায়ীরা। তারা সাংবাদিকদের বলেন আমরা মনে করিনি এত লোক আসবে। আল্লাহর রহমতে অনেক লোক আসছে তাতে আমাদের ভালো ব্যবসা হচ্ছে।
শীত মৌসুম শেষে সাগর উত্তাল থাকায় পর্যটকদের সবসময় সমুদ্রস্নানে সতর্ক হওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন কক্সবাজারের লাইফ গার্ড কর্মীরা তারা জানান , ‘যেখানে লাইফগার্ড থাকে না সেখানে বিপদগুলো হতে থাকে। যেখানে লাইফগার্ড সার্ভিস দিচ্ছে সেখানে সাঁতার কাটা নিরাপদ।,
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ঘুরতে আসা হাবীব খান জানান, ইনানী বীচের মনোরম পরিবেশ দেখে খুব ভালই লেগেছে। এইখানে এসে সূর্যাস্তের মনোরম দৃশ্য উপভোগ করলাম। পাথরের ওপর ছোটাছুটির স্মৃতি ক্যামেরাবন্দি করা। স্মৃতির পাতায় আজীবন অক্ষত থাকবে ইনানী ভ্রমণ।
ইনানী বীচের আবাসিক হোটেল মালিকরা বলেন ইনানী বীচ বাংলাদেশের পর্যটন নীতি প্রণয়ন করে টুরিস্টদের ভিড় উপকণ্ঠে সরিয়ে দিতে হবে। ইনানী বীচ এলাকায় অন্যান্য আকর্ষণ সৃষ্টি করতে হবে।

আপনার মন্তব্য দিন

নিউজটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..
© All rights reserved © 2016-2019 | Alokitoteknaf.com
Theme Customized By Shah Mohammad Robel