You cannot copy content of this page

সাংবাদিক মাহফুজউল্লাহর জানাজা দুপুরে

mahfuullah.gif

নিউজ ডেস্কঃ-

বিশিষ্ট সাংবাদিক মাহফুজউল্লাহর জানাজা আজ রবিবার দুপুরে (বাদ জোহর) অনুষ্ঠিত হবে বলে জানানো হয়েছে। এর আগে গত রাতে তাঁর  মরদেহ ব্যাংকক থেকে ঢাকা নিয়ে আসা হয়েছে।

থাইল্যান্ডের বামরুনগ্রাদ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন মাহফুজউল্লাহ। সেখানেই শনিবার বেলা ১১টার দিকে তার মৃত্যু হয়। ৬৯ বছর বয়সী মাহফুজউল্লাহ হৃদরোগ, কিডনি ও উচ্চ রক্তচাপজনিত সমস্যায় ভুগছিলেন। এর আগে ব্যাংককে একবার তার বাইপাস সার্জারিও হয়েছিল।

এরপর শনিবার রাত ১টা ২০ মিনিটে একটি ফ্লাইটে তার কফিন ঢাকার শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছায়।

রাতে মাহফুজউল্লাহর মরদেহ রাখা হয় হাসপাতালের হিমঘরে। রোববার জোহরের নামাজের পর গ্রিনরোড জামে মসজিদে এবং আসরের পর জাতীয় প্রেস ক্লাবে দুই দফা জানাজা শেষে মীরপুরে বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে তাকে দাফন করা হবে।

১৯৫০ সালে নোয়াখালীতে মাহফুজউল্লাহর জন্ম। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পদার্থবিদ্যা ও সাংবাদিকতায় স্নাতকোত্তর ডিগ্রি নেন। তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তান ছাত্র ইউনিয়নের কর্মী হিসেবে ঊনসত্তরের ১১ দফা আন্দোলনে অংশ নেন মাহফুজউল্লাহ। আইয়ুব খানের শাসনামলে তাকে ঢাকা কলেজ থেকে বহিষ্কারও করা হয়েছিল। তিনি পরে ছাত্র ইউনিয়নের (মেনন) সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

ছাত্রাবস্থাতেই মাহফুজউল্লাহ সাংবাদিকতা পেশার সঙ্গে জড়িয়ে পড়েন। বাংলাদেশের একসময়ের জনপ্রিয় সাপ্তাহিক বিচিত্রার ১৯৭২ সাল থেকেই তিনি জড়িত ছিলেন। বিভিন্ন বাংলা ও ইংরেজি দৈনিকে কাজ করেছেন তিনি।

আপনার মন্তব্য দিন

Share this post

scroll to top