নিজস্ব প্রতিনিধি। 

কক্সবাজারের মহেশখালীতে পারিবারিক বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষের দেওয়া আগুন নেভাতে গিয়ে ৬ লাখের বেশি ইয়াবা উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ সময় তিনটি মোটরসাইকেল ও একটি প্রাইভেটকার জব্দ করা হয়েছে। তবে এ ঘটনায় কাউকে আটক করতে পারেনি পুলিশ।

সোমবার (২৯ মার্চ) ভোরে মহেশখালী পৌরসভার সিকদারপাড়া থেকে এসব ইয়াবা উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, পারিবারিক শত্রুতার জের ধরে মহেশখালী পৌরসভার মেয়র মকছুদ মিয়া ও তার চাচাত ভাই সালাহ উদ্দিনের দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। তার পরিপ্রেক্ষিতে দুর্বৃত্তরা রোববার রাতে মেয়র মকছুদের সমর্থকের ওপর গুলি করে। 

এতে গুলিবিদ্ধ হন নুর হোসেন (৪০), কাউছার (৩০) ও ভূবন (৩৫)। এ ঘটনার জের ধরে দুর্বৃত্তরা সালাহ উদ্দিনের গ্যারেজে আগুন ধরিয়ে দেয়। সে আগুন নেভাতে গিয়ে বিপুল পরিমাণ ইয়াবার সন্ধান পায় পুলিশ। পরে প্রাভেটকার থেকে ৬ লাখ ২২ হাজার ইয়াবা উদ্ধার করা হয়।

মহেশখালী থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল হাই ঢাকা পোস্টকে বলেন, মহেশখালীর ইতিহাসে এটি সর্ববৃহৎ ইয়াবা চালান। তবে উদ্ধার করা ইয়াবার মধ্যে ২ লাখ ২০ হাজার আংশিক পুড়ে গেছে। এই ইয়াবার উৎস ও কারবারের সঙ্গে কে বা কারা জড়িত আছে তা বের করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মহেশখালী সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার জাহেদুল ইসলাম ঢাকা পোস্টকে বলেন, প্রথমে গুলাগুলি ও পরে আগুন লাগলে পুলিশের কয়েকটি টিম অভিযানে নামে। এক পর্যায়ে তারা এসব মাদকের সন্ধান পায়। এর সঙ্গে জড়িতদের আইনের আওতায় আনা হবে।