শুক্রবার, ০১ জুলাই ২০২২, ০১:০১ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
রোহিঙ্গা ক্যাম্পে নারী ও শিশু নির্যাতন রোধে ৮-এপিবিএন এর হটলাইন চমেক শিশু স্বাস্থ্য বিভাগের প্রধান হলেন অধ্যাপক ডা. রেজাউল করিম অবশেষে শুরু হচ্ছে টেকনাফ-কক্সবাজার সড়কের নির্মাণ কাজ উখিয়া ক্যাম্পে ডাকাতি প্রস্তুতিকালে অস্ত্রসহ ছয় রোহিঙ্গা গ্রেফতার বঙ্গোপসাগরে ভাসমান স্বর্ণ: বদলে দিতে পারে দেশের ভাগ্য! টেকনাফে পাহাড় থেকে অস্ত্রসহ ২ রোহিঙ্গা ডাকাত গ্রেফতার অপহৃত মিয়ানমারের দুই শিক্ষক বিজিপির নিকট হস্তান্তর উখিয়া রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের গুলিতে তালিকাভূক্ত সন্ত্রাসী নিহত মিয়ানমার থেকে পাচারকালে ১কেজি আইসসহ পাচারকারী গ্রেফতার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ‍‍‌‌‌‌‌‍’বাড়ি চলো’ ক্যাম্পেইন চলছে

ঊনকবি মহাকবি

Reporter Name
  • Update Time : শনিবার, ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৭
  • ৪২৬ Time View

সাজ্জাদ হোসেন

ঊনকবি ঊন মন ঊন বোধ-চিন্তন
ঊন হাতে লিখেছিল ঊন কিছু পদ্য,
ঊন তার ভাষাজ্ঞান ঊন প্রাণ আনচান
ঊন ছাঁচে ঢেলেছিল খুনে কিছু গদ্য।

মহাকবি মহামন মহা তার মন্থন
মহা ভাষে রচে চলে মহা মহা কাব্য,
মহা সে যে মহাজ্ঞানী বলে সব বেদবানী
মহা জলধিতে ভাসে শুধু হলে নাব্য।

এক প্রাতে ঊনকবি যেই ক্ষণে জাগে রবি
কাঁপা কাঁপা পায়ে পায়ে পৌঁছালো সৈকত,
মহাকবি কবিরাজ কবিতার অধিরাজ
বলে তাকে, ‘থামো থামো, বাড়োনাকো ওই পথ।’

ঊনকবি লাজে লাল হয়ে পুরো বেসামাল
করে তাকে মহাপূজা দিল নিজ সৃষ্টি।
মহাকবি ভুরু উঁচা, বলে তাকে দিয়ে খোঁচা,
‘ছাগলে কি চষে জমি? আছে কোন কৃষ্টি?
যাও ফিরে শিগগির, নয় কাটা যাবে শির
ধীবরে কি পারে কভু পঠিতে ও চণ্ডী?
কবি যদি হতে চাও সিদ্ধির ধ্বজা নাও
না হয় চেয়ো না ফের ভাঙিতে স্ব-গণ্ডি।’

ঊনকবি ভয়ে ভীত, হয়ে গৃহে উপনীত
জ্বেলে দিল লেখা যত রচেছিল নিজে সে,
বিদ্যার চাষ ফেলে লাঙলের ফলা ঠেলে
ফুঁড়ে চলে মাটি শুধু হয়ে অবনত সে।

হেন মহা অনাচারে দিয়ে ঘের চার ধারে
নেমে এল নারায়ণ শিবরূপে ভূধরে
ধরে নিয়ে কবিরাজ করে তাকে তিন ভাঁজ
ত্রিশূলের শূল মাথা ভরে দিল উদরে।

নারায়ণ বলে, ‘শোনো, এইবার দিন গোনো
অহংয়ের বেসাতিতে হয় না তো কবিতা,
নও তুমি বিচারক, মিথ্যার প্রচারক
কলুষিত চেতনাকে গিলে খাক সবিতা।’

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 Alokito Teknaf
Handicraft By SHAH