বাড়িকক্সবাজারকক্সবাজারে আরেক মেম্বার প্রার্থী গুলিবিদ্ধ, আটক ১

কক্সবাজারে আরেক মেম্বার প্রার্থী গুলিবিদ্ধ, আটক ১

কক্সবাজার প্রতিনিধি:

কক্সবাজারে আরেক মেম্বার প্রার্থী গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। সোমবার (৮ নভেম্বর) রাত ৯টার দিকে কক্সবাজার সদরের পিএমখালী ইউনিয়নের তোতকখালীতে দুর্বৃত্তের গুলিতে মারাত্মক আহত হয়েছেন মেম্বর প্রার্থী রেজাউল করিম।

গুলিবিদ্ধ রেজাকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসার পর চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ একজনকে আটক করেছে। গুলিবিদ্ধ প্রার্থী রেজা তোতকখালী এলাকার সাবেক মেম্বার আবুল কালামের ছেলে। তিনি ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ছিলেন।

পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে এবং ঘটনায় জড়িত সন্দেহ রিয়াদ সাগর আকাশ নামে একজনকে আটক করেছে। আটক রিয়াদ প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী তাজমহল সিকদারের সমর্থক হিসাবে পরিচিত।

স্থানীয় সূত্র জানায়, অন্যদিনের মতো সোমবার সন্ধ্যা থেকে এলাকার পাড়ায় নির্বাচনী প্রচারণা চালাচ্ছিলেন ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ড তোতকখালীর মেম্বার প্রার্থী রেজাউল করিম। রাত নয়টার দিকে বাড়ি ফেরার পথে দুর্বৃত্তরা গুলি করে পালিয়ে যায়। গুলিবিদ্ধ রেজাউল করিমকে এলাকার লোকজন কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসার পর চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

হাসপাতালের চিকিৎসকরা জানান, ছররা গুলির অনেক স্প্রিন্টার তার দুই উরুর পেছনে এবং পায়ের বিভিন্ন অংশে বিদ্ধ হয়েছে। তবে গুলিবিদ্ধ প্রার্থী রেজা এ বিষয় নিয়ে কোনো বক্তব্য দেননি।

স্থানীয়দের মতে, তোতকখালী ওয়ার্ডের তিন মেম্বার প্রার্থীই একই পরিবারের চাচাতো জেঠাতো ভাই। তাদের মধ্যে আগে থেকে পারিবারিক বিরোধ প্রকট।

কক্সবাজার সদর থানার ওসি শেখ মুনীর উল গীয়াস বলেন, ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এবং হাসপাতালে পুলিশ পাঠানো হয়। ইতোমধ্যে পুলিশ একজনকে আটক করেছে। ঘটনার ক্লু বের করার চেষ্টা চলছে। মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলেও জানান তিনি।

উল্লেখ্য, শুক্রবার ঝিলংজা ইউনিয়নে বিসিক ও লিংকরোড় এলাকার মেম্বার প্রার্থী ও বর্তমান মেম্বার কুদরত উল্লাহ সিকদার ও তার বড় ভাই জেলা শ্রমিক লীগ সভাপতি জহিরুল ইসলাম সিকদার কর্মী-সমর্থক নিয়ে অফিসে আলোচনা করার সময় দুর্বৃত্তরা গুলি করে পালিয়ে যায়। চিকিৎসাধীন থাকার দুদিনের মাথায় মারা যান জহিরুল ইসলাম।

RELATED ARTICLES

Most Popular

Recent Comments