বৃহস্পতিবার, ০৭ জুলাই ২০২২, ০২:১২ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
নববধূ সেজে ঢাকা থেকে ইয়াবা কিনতে এসে পুলিশের হাতে ধরা উখিয়া ক্যাম্পে অস্ত্র ও ইয়াবাসহ দুই রোহিঙ্গা গ্রেফতার কক্সবাজারে পুলিশের উপিস্থিতিতে ছাত্রলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা টেকনাফে ৭ কোটি টাকার আইস ও ইয়াবা উদ্ধার, আটক ১ টেকনাফ স্থলবন্দর থেকে কর/শুল্ক ফাঁকি দিয়ে পাচারকালে ৭২লাখ টাকার অবৈধ মালামাল জব্দ- গ্রেফতার ৩ উখিয়ায় ৫০ হাজার ইয়াবা উদ্ধার : এক রোহিঙ্গাসহ তিন জন গ্রেফতার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে নারী ও শিশু নির্যাতন রোধে ৮-এপিবিএন এর হটলাইন চমেক শিশু স্বাস্থ্য বিভাগের প্রধান হলেন অধ্যাপক ডা. রেজাউল করিম অবশেষে শুরু হচ্ছে টেকনাফ-কক্সবাজার সড়কের নির্মাণ কাজ উখিয়া ক্যাম্পে ডাকাতি প্রস্তুতিকালে অস্ত্রসহ ছয় রোহিঙ্গা গ্রেফতার

জমিলার চিকিৎসার দায়িত্ব নিলেন এমপি বদি

Reporter Name
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮
  • ৬২০ Time View

নিজস্ব প্রতিবেদক::

পেটে ২০ কেজির মত একটি টিউমার নিয়ে চিকিৎসার অভাবে টেকনাফের বাহারছরা শামলাপুর বাজারে রাস্তার পাশে যন্ত্রনায় কাতরানো অসহায় অভিভাবকহীন জমিলা নামের সেই নারীর চিকিৎসার ব্যবস্থা হয়েছে। টেকনাফ বাহারছড়ার বড়ডেইল এলাকায় বলে স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে। এমপি আলহাজ্ব আবদুর রহমান বদি সিআইপির বদন্যতায় অবশেষে সেই অভিভাবকহীন নারীর চিকিৎসার সুযোগ মিলেছে। শুধু জমিলা নন, এমপি বদি বদান্যতায় অনেক অসহায় রুগী এবং শিক্ষার্থী আলোর মুখ দেখার রেকর্ড রয়েছে।

জানা যায়, চিকিৎসার অভাবে টেকনাফের বাহারছরা শামলাপুর বাজারে রাস্তার পাশে যন্ত্রনায় কাতরানো অভিভাবকহীন জমিলা নামের সেই নারীর বিষয়ে স্যোশাল মিডিয়া ও অন-লাইন মিডিয়ায় প্রচারিত হলে টেকনাফ-উখিয়া থেকে নির্বাচিত সরকার দলীয় এমপি আলহাজ্ব আবদুর রহমান বদি সিআইপির নজরে আসে। তিনি লোক পাঠিয়ে অসহায় অভিভাবকহীন জমিলাকে এনে কক্সবাজার খতীব আল ফুয়াদ হাসপাতালে ভর্তি করিয়ে দেন। তিনি জমিলার চিকিৎসার যাবতীয় ব্যয় ভার গ্রহণ করেছেন বলে জানা গেছে।

আরো পড়ুনঃ-  ২০ কেজি টিউমার পেটে নিয়ে চিকিৎসার অভাবে রাস্তায় এক নারী

এলাকাবাসী সুত্রে জানা যায় এই নারীর চিকিৎসার জন্য অনেকেই সাহায্য সহযোগিতা করতে রাজি আছেন, কিন্তু অসুস্থ নারীর টিউমার অপারেশনের সময় ডাক্তারের কাছে স্বাক্ষর দেওয়ার জন্য একজন অভিভাবক পাওয়া যায়নি। অসুস্থ নারীর আত্মীয়-স্বজন তাঁর কোনই খোঁজ খবর রাখেননি। টিউমার আক্রান্ত নারীকে যন্ত্রণায় শামলাপুর বাজারের রাস্তায় কাতরাতে এবং এসময় অনেক মানুষকে উক্ত নারীর প্রতি সহানুভূতি প্রকাশ করতে দেখা যায়। সকলেই তাঁর চিকিৎসা খরচের জন্য সাহায্য সহযোগিতা করতে আগ্রহ প্রকাশ করলেও কেউ রুগীর দেখাশুনা করার এবং সাহায্যের টাকা সংগ্রহ করার জন্য একজন বিশ্বস্থ অভিভাবক ছিলনা। বাহারছড়ার সর্বস্তরের মানুষ অসহায় এই নারীর সাহায্যে এগিয়ে আসার জন্য একজন মানবপ্রেমী মানুষকে অভিভাবক হিসেবে চেয়ে এবং সমাজের বিক্তবানদের এ নারীর চিকিৎসার জন্য এগিয়ে আসার আহবান জানিয়েছিল।

প্রকাশিতঃ  ১১-০৩-২০১৭

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 Alokito Teknaf
Handicraft By SHAH