সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৬:০২ পূর্বাহ্ন

টেকনাফে চাকমারকুল পাহাড় থেকে গলা কাটাসহ রক্তাক্ত তিন রোহিঙ্গা উদ্ধার : নিখোঁজ-৩

Reporter Name
  • Update Time : সোমবার, ৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮
  • ২৪১ Time View

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ-

কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলার হোয়াইক্যং ইউনিয়নের চাকমারকুল রোহিঙ্গা ক্যা¤প সংলগ্ন পাহাড় থেকে গলাকাটাসহ রক্তাক্ত অবস্থায় তিন রোহিঙ্গাকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। তাদের গলা কেটে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছিল বলে জানিয়েছেন। উদ্ধার রোহিঙ্গারা হল, উখিয়া কুতুপালং লম্বাসিয়া ক্যা¤েপর ই-৩ বøকের ৮ নাম্বার ঘরের আব্দুল গফুরের ছেলে মো: আনোয়ার(৪০), কুতুপাল ই-৩ -৮ বøকের সফিক হোসনের ছেলে নুর আলম(৪৫), বালুখালী -১ বøকের ডি-৩- এ-১ জামাল মোস্তফার ছেলে মো: খালেক(২২)। এছাড়া আরো তিন রোহিঙ্গা নিখোঁজ রয়েছে বলে জানা গেছে।আলোকিত টেকনাফ ডটকম
সোমবার (৩ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ৮ টার দিকে হোয়াইক্যং চাকমারকুলের পারিয়া পাহাড়ের ভেতর থেকে তাদের উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন টেকনাফের হোয়াইক্যং পুলিশ চৌকির কর্মকর্তা (এসআই) দীপংকর কর্মকার।
পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, খবর পেয়ে সকালে পুলিশের একটি দল তার নেতৃত্বে ও স্থানীয়দের সহযোগিতায় সকালের দিকে পাহাড়ের ভেতর থেকে একে একে তিন রোহিঙ্গাকে গলা কাটাসহ রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে। তাদের উদ্ধার করে দ্রæত চাকমারকুল স্যাইভ দ্যা সিলড্রেন হাসপাতালে নেওয়া হলে তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য উখিয়া কুতুপালং হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। বর্তমানে গুরুত্বর আহত গলাকাটা আনোয়ারকে এমএসএফ হাসপাতালে অন্য দুই জনকে রেড ক্রিমেন্ট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে জানায়।
এদিকে উদ্ধার রোহিঙ্গাদের গলা কেটে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছিল। রোহিঙ্গাদের পরনে গেঞ্জি ও লুঙ্গি ছিল। তবে আরও নিখোঁজ রয়েছে বলে পাহাড়ে তল্লাশি অভিযান চালানো হচ্ছে। তবে তাদের কে বা কারা হত্যার চেষ্টা করছিল, সে বিষয়ে এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি।
এদিকে খবর পেয়ে টেকনাফ মডেল থানার ওসি রনজিত কুমার বড়–য়া ঘটনাস্থলে ছুটে যান।
তিনি বলেন, সকালের দিকে রোহিঙ্গা ক্যাম্পের দুইশ গজ পাহাড়ের ভেতর থেকে গলা কাটাসহ রক্তাক্ত অবস্থায় তিন রোহিঙ্গাকে উদ্ধার করা হয়েছে। তাদের চিকিৎসার জন্য দ্রæত হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনার সাথে কারা জড়িত তা খতিয়ে দেখে আইনী ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানায়।
তবে গত রবিবার গভীর রাতে উখিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে ছয় জন রোহিঙ্গা নিখোঁজ হয়েছিল। এ নিখোঁজ রোহিঙ্গাদের মধ্যে গলাকাটাসহ রক্তাক্ত উদ্ধার তিন জনই রোহিঙ্গাও ছিল বলে শুনেছেন চাকমারকুল রোহিঙ্গা নেতা মোঃ জাবের। তিনি আরও জানান, রক্তাক্ত রোহিঙ্গার খবর পেয়ে ছুটে গিয়ে তিন জনকে উদ্ধার করা হয়েছে। আরো নিখোঁজদের খোঁজ চালিয়ে যাচেছন।
হোয়াইক্যং ইউপি চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ নূর আহাম্মদ আনোয়ারী বলেন, স্থানীয়দের কাছ থেকে শুনেছি উখিয়া থেকে ছয় জন রোহিঙ্গাকে অপহরন করা হয়েছে। এদের মধ্যে তিন জনকে গলাকাটাসহ রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়।

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 Alokito Teknaf
Handicraft By SHAH