বিশেষ প্রতিনিধি।

কক্সবাজারের টেকনাফে র‌্যাবের সাথে গুলি বিনিময়ের ঘটনা ঘটেছে। এসময় রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী ভয়ংকর জকির বাহিনীর প্রধান জকিরসহ ৩ রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী নিহত হয়েছে। পুলিশের দাবী জকিরের বিরুদ্ধে দেড় ডজন মামলা রয়েছে।

আজ মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যা ৬টা নাগাদ উপজেলার নয়াপাড়া শালবন পাহাড় এলাকায় এই ঘটনা ঘটেছে বলে নিশ্চিত করেছেন (র‌্যাব-১৫) এর অধিনায়ক উইং কমান্ডার আজিম আহমেদ।

র‍্যাব অধিনায়ক জানান- জহির ডাকাতসহ রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী গ্রুপের একটি দল শালবন পাহাড়ে অবস্থানের গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‍্যাব সদস্যরা অভিযান চালায়। এসময় র‍্যাবের উপস্থিতি টেরপেয়ে সন্ত্রাসীরা র‍্যাবকে উদ্দেশ্য করে গুলি ছুঁড়ে। জবাবে র‍্যাব পালটা গুলি ছুঁড়লে সন্ত্রাসীরা পিছু হটে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে ঘটনাস্থল থেকে ৭টি দেশীয় বন্দুক, ২টি বিদেশী পিস্তল ও বিপুল পরিমান গুলিসহ জকির ডাকাত ও তার দুই সহযোগীর গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করে।

টেকনাফ মডেল থানার (ওসি) হাফিজুর রহমান জানান, নিহত জকির ডাকাত একজন মোস্ট ওয়ান্টেট সন্ত্রাসী। তার বিরুদ্ধে অন্তত ১৬টির অধিক মামলা রয়েছে।ঘটনা স্থলে পুলিশের একটি টিম র‍্যাবের সাথে রয়েছে। রাতেই লাশ ময়না তদন্তের জন্য জেলা মর্গে প্রেরন করা হবে। এই ঘটনায় আইনী প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে।