শুক্রবার, ০১ জুলাই ২০২২, ০১:৪১ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
রোহিঙ্গা ক্যাম্পে নারী ও শিশু নির্যাতন রোধে ৮-এপিবিএন এর হটলাইন চমেক শিশু স্বাস্থ্য বিভাগের প্রধান হলেন অধ্যাপক ডা. রেজাউল করিম অবশেষে শুরু হচ্ছে টেকনাফ-কক্সবাজার সড়কের নির্মাণ কাজ উখিয়া ক্যাম্পে ডাকাতি প্রস্তুতিকালে অস্ত্রসহ ছয় রোহিঙ্গা গ্রেফতার বঙ্গোপসাগরে ভাসমান স্বর্ণ: বদলে দিতে পারে দেশের ভাগ্য! টেকনাফে পাহাড় থেকে অস্ত্রসহ ২ রোহিঙ্গা ডাকাত গ্রেফতার অপহৃত মিয়ানমারের দুই শিক্ষক বিজিপির নিকট হস্তান্তর উখিয়া রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের গুলিতে তালিকাভূক্ত সন্ত্রাসী নিহত মিয়ানমার থেকে পাচারকালে ১কেজি আইসসহ পাচারকারী গ্রেফতার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ‍‍‌‌‌‌‌‍’বাড়ি চলো’ ক্যাম্পেইন চলছে

নৌকার বিরুদ্ধে অবস্থান নিলে কঠোর ব্যবস্থা : ওবায়দুল

Reporter Name
  • Update Time : সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮
  • ১৮২ Time View

চকরিয়া প্রতিনিধিঃ-

নিজ দলের মানুষ হয়ে নৌকার বিরুদ্ধে অবস্থান নিলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, স্ব-স্ব আসনের মনোনয়ন প্রত্যাশীদের আমলনামা এখন দলের সভানেত্রী শেখ হাসিনার হাতে। জনপ্রিয়তা এবং জনসম্পৃক্ততা যাচাই করেই তিনি নৌকার মনোনয়ন দেবেন। কিন্তু দলের কোনো ব্যক্তি যদি মনোনয়ন না পেয়ে ক্ষুব্ধ হয়ে নৌকার বিরুদ্ধে অবস্থান নেয় তাহলে আর ছাড় নয়, দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি তার।

রোববার (২৩ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা ৭ টায় চকরিয়া বাসটার্মিনালে উপজেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এই হুঁশিয়ারি দেন।

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী image ওবায়দুল কাদের আরো বলেন, বিএনপি-জামায়াত আমাদের প্রতিপক্ষ নয়, আমাদের সবচেয়ে বড় প্রতিপক্ষ আমরা নিজেরাই। ঐক্যমতে পৌঁছতে না পেরে বা জেলাসি হয়ে নিজ দলের একজন ভাইয়ের বিরুদ্ধে খুব সহজে অবস্থান নিই। আর তখনই সুযোগ বুঝে স্বার্থ হাসিল করে বিএনপি-জামায়াত। তাই দলের মধ্যে যত কোন্দল বা দ্বন্দ্ব আছে আজ থেকে সব ভুলে গিয়ে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে নৌকাকে বিজয়ী করার স্বার্থে। নেতাদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, এটা জেনে রাখুন, যারা কোন্দলে জড়িত থাকবে তাদের হাতে অন্তত নৌকা তুলে দেওয়া হবে না। তাই ঐক্যবদ্ধ হয়ে নৌকাকে বিজয়ী করার যুদ্ধে নেমে পড়ুন। মন্ত্রী বলেন, বিএনপির মরা গাঙে এখন আর পানি নাই। তাই যখন যেটা পায় সেটাকে বুকে টেনে নিতে চায়। যেমনটা কৌটা সংস্কার আন্দোলন, ছাত্রদের নিরাপদ সড়ক আন্দোলনে ঢুকে পড়ে পায়দা লুটতে চেয়েছিল। কিন্তু শেখ হাসিনা ছাত্রদের সব দাবি ঠান্ডা মাথায় মেনে নিয়ে বিএনপির বুকে চপেটাঘাত করেছেন। এখন শেষ সম্বল হিসেবে তারা আঁকড়ে ধরেছে কামাল সাহেব আর বদরুদ্দোজা সাহেবকে। কিন্তু সত্যি কথা বলতে তারাও কিছু করতে পারবে না বিএনপির জন্য। বিএনপি’র কোনো নাটকই জনগণ গ্রহণ করবে না। কারণ জনগণ বুঝতে পেরেছে শেখ হাসিনা মানে উন্নয়ন, মর্যাদা।

চকরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জাফর আলমের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক গিয়াস উদ্দিন চৌধুরীর সঞ্চালনায় জনসভায় আরও বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য আব্দুল মতিন খসরু, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম হানিফ, উপ-প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, উপ-দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, সাংগঠনিক সম্পাদক এনামুল হক শামীম ও ব্যারিস্টাল মুহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সিরাজুল মোস্তফা, সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান, সাংসদ আবদুর রহমান বদি ও আশেক উল্লাহ রফিক এম.পি। চকরিয়ার জনসভা শেষে রাত আটটার দিকে সদর উপজেলার ঈদগাঁও আদর্শ উচ্চবিদ্যালয়ের মাঠে আয়োজিত জনসভায় কেন্দ্রীয় নেতাদের নিয়ে যোগ দেন ওবায়দুল কাদের।

ঈদগাও’র জনসভায় ওবায়দুল কাদের বলেন, সম্প্রতি কক্সবাজার পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ ভেদাভেদ ভুলে ঐক্যবদ্ধ হতে পেরেছিল বলেই নৌকার প্রার্থী মুজিবুর রহমান বিপুল ভোটে জয়ী হয়েছিলেন। তেমনিভাবে আগামী একাদশ সংসদ নির্বাচনে দলকে আবারও ক্ষমতায় আনতে হলে গ্রুপিং বা দ্বন্দ্ব ভুলে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।

যার হাতে শেখ হাসিনা নৌকা দেবেন, তাকে বিজয়ী করার জন্য সবাইকে ঝাঁপিয়ে পড়তে হবে। সবার একটাই লক্ষ্য থাকবে, নৌকার বিজয়।

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 Alokito Teknaf
Handicraft By SHAH