রবিবার, ০৩ জুলাই ২০২২, ০২:২৪ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
টেকনাফে ৭ কোটি টাকার আইস ও ইয়াবা উদ্ধার, আটক ১ টেকনাফ স্থলবন্দর থেকে কর/শুল্ক ফাঁকি দিয়ে পাচারকালে ৭২লাখ টাকার অবৈধ মালামাল জব্দ- গ্রেফতার ৩ উখিয়ায় ৫০ হাজার ইয়াবা উদ্ধার : এক রোহিঙ্গাসহ তিন জন গ্রেফতার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে নারী ও শিশু নির্যাতন রোধে ৮-এপিবিএন এর হটলাইন চমেক শিশু স্বাস্থ্য বিভাগের প্রধান হলেন অধ্যাপক ডা. রেজাউল করিম অবশেষে শুরু হচ্ছে টেকনাফ-কক্সবাজার সড়কের নির্মাণ কাজ উখিয়া ক্যাম্পে ডাকাতি প্রস্তুতিকালে অস্ত্রসহ ছয় রোহিঙ্গা গ্রেফতার বঙ্গোপসাগরে ভাসমান স্বর্ণ: বদলে দিতে পারে দেশের ভাগ্য! টেকনাফে পাহাড় থেকে অস্ত্রসহ ২ রোহিঙ্গা ডাকাত গ্রেফতার অপহৃত মিয়ানমারের দুই শিক্ষক বিজিপির নিকট হস্তান্তর

প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতিমতে টেকনাফ কলেজ সরকারি হওয়ায় আনন্দে ভাসছে সমগ্র টেকনাফ

Reporter Name
  • Update Time : সোমবার, ১৩ আগস্ট, ২০১৮
  • ৪০৭ Time View

।। আব্দুল বাসেত,টেকনাফ ।।

প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী টেকনাফ কলেজ সরকারিকরণ হওয়ায় আনন্দে ভাসছে সমগ্র টেকনাফ।টেকনাফ উপজেলার সর্বোচ্চ বিদ্যাপীঠ টেকনাফ ডিগ্রী কলেজের সরকারিকরণ চুড়ান্ত করায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন ,শুভেচ্ছা ও কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন অত্র কলেজের গভর্ণিং বডির সভাপতি জনাব আলহাজ্ব আব্দু রহমান বদি এম.পি., শিক্ষক-শিক্ষিকা-কর্মচারী-ছাত্রছাত্রীবৃন্দ।এ খুশির সংবাদে কলেজর সকল বর্তমান-প্রাক্তন ছাত্রছাত্রী,অভিভাবক,এলাকার সর্বস্তরের জনসাধারণ আনন্দে মাতোয়ারা।এ উপলক্ষে আগামীকাল রোজ সোমবার সকাল ১১ ঘটিকার সময় এক আনন্দ র‍্যালী অনুষ্ঠিত হবে। এতে টেকনাফ সরকারি কলেজের বর্তমান-প্রাক্তন ছাত্রছাত্রী,অভিভাবক,এলাকার সর্বস্তরের জনসাধারণকে  যথাসময়ে কলেজ ক্যাম্পাসে উপস্থিত থাকার জন্য বিনীতভাবে অনুরোধ করা হলো।

উল্লেখ্য যে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী দেশের ২৭১ কলেজকে সরকারিকরণ করে রোববার দুপুরে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের উপসচিব নাছিমা খানম স্বাক্ষরিত এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।এতে বলা হয়েছে, গত ৮ আগস্ট থেকে এসব কলেজকে সরকারি করার আদেশ কার্যকর করা হয়েছে।এতে টেকনাফ ডিগ্রী কলেজও রয়েছে। এর আগে সারা দেশে শিক্ষক প্রশিক্ষণ কলেজ (টিটিসি), সরকারি আলিয়া মাদ্রাসাসহ ৩২৭টি সরকারি কলেজ ও সমমানের প্রতিষ্ঠান ছিল। নতুন ঘোষণা আসায় সরকারি কলেজের সংখ্যা দাঁড়াল ৫৯৮টি।

নতুন করে সরকারি হওয়া কলেজগুলোর মধ্যে ঢাকা জেলার ৪টি, মানিকগঞ্জের ৪টি, নারায়ণগঞ্জের ৩টি, মুন্সীগঞ্জের ৩টি, গাজীপুরের ৩টি, নরসিংদীর ৪টি, রাজবাড়ীর ২টি, শরীয়তপুরের ৪টি, ময়মনসিংহের ৮টি, কিশোরগঞ্জে ১০টি, নেত্রকোনার ৫টি, টাঙ্গাইলে ৮টি, জামালপুরে ৩টি, শেরপুরে ৩টি, চট্টগ্রামে ১০টি, কক্সবাজারে ৫টি, রাঙামাটিতে ৪টি, খাগড়াছড়িতে ৬টি, বান্দরবানে ৩টি, নোয়াখালী, লক্ষ্মীপুর ফেনীতে একটি করে, কুমিল্লায় ১০টি, ব্রাক্ষ্মণবাড়িয়া ৬টি, চাঁদপুরে ৭টি, সিলেটে ৯টি, হবিগঞ্জে ৫টি, মৌলভীবাজারের ৫টি, সুনামগঞ্জে ৮টি, রাজশাহীতে ৭টি, চাঁপাইনবাবগঞ্জে ২টি, নাটোরে ৩টি, পাবনায় ৭টি, সিরাজগঞ্জে তিনটি, নওগাঁ জেলায় ৬টি, বগুড়ায় ৬টি, জয়পুরেহাটে একটি, রংপুরে ৭টি, নীলফামারীতে ৪টি, গাইবান্ধায় ৪টি, কুড়িগ্রামে সাতটি, দিনাজপুরে ৯টি লালমনিরহাটে ৩টি, ঠাকুরগাঁয়ে একটি, পঞ্চগড়ে ৪টি, খুলনায় ৫টি, যশোরে ৫টি, বাগেরহাটে ৬টি, ঝিনাইদহে একটি, কুষ্টিয়ায় দুটি, চুয়াডাঙ্গায় দুটি, সাতক্ষীরায় দুটি, মাগুরায় ৩টি, নড়াইলে একটি, বরিশালে ৬টি, ভোলায় ৪টি, ঝালকাঠিতে ৩টি, পিরোজপুরে দুটি, পটুয়াখালীতে ৬টি, বরগুনায় তিনটি কলেজ রয়েছে।

উল্লেখ্য, সরকারি কলেজ না থাকা উপজেলায় একটি করে কলেজ জাতীয়করণ করতে ২০১৬ সাল থেকে তালিকাভুক্তির কাজ শুরু করে সরকার। ওই তালিকা থেকে ২৭১টি কলেজ জাতীয়করণের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

গত ২ আগস্ট এ সিদ্ধান্তের সারসংক্ষেপ অনুমোদনের জন্য প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে পাঠায় শিক্ষা মন্ত্রণালয়। গত বৃহস্পতিবার এটি অনুমোদন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।পরে সারসংক্ষেপটি ফের শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে আসে। এর পর সব প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে আজ প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়।জানা গেছে, নতুন সরকারি কলেজগুলোতে আট হাজারেরও বেশি শিক্ষক রয়েছেন। এসব শিক্ষক সরকারি কর্মকমিশনের (পিএসসি) অধীনে পরীক্ষার মাধ্যমে ক্যাডারভুক্ত হতে পারবেন।

গত ৩১ জুলাই এ সংক্রান্ত ‘সরকারিকৃত কলেজশিক্ষক ও কর্মচারী আত্তীকৃত বিধিমালা ২০১৮’ জারি করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।           বিধি অনুযায়ী, প্রয়োজনীয় যোগ্যতা থাকলে বেসরকারি কলেজের যে কোনো শিক্ষক শিক্ষা ক্যাডারের প্রভাষক পদে নিয়োগ পেতে পিএসসির অধীনে পরীক্ষায় অংশ নিতে পারবেন।                                                                                                                                তবে সরকারি হওয়া কলেজের অধ্যক্ষ, উপাধ্যক্ষ, সহকারী অধ্যাপক ও প্রভাষকরা নন-ক্যাডার হিসেবে নিজ নিজ পদে নিয়োগ পাবেন। তাদের চাকরি বদলিযোগ্য নয়।

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 Alokito Teknaf
Handicraft By SHAH