সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৫:১১ পূর্বাহ্ন

‘মন্ত্রী হওয়া কি আমার অপরাধ?’

Reporter Name
  • Update Time : শুক্রবার, ২০ এপ্রিল, ২০১৮
  • ২৯৫ Time View

 

বিশেষ প্রতিবেদকঃ

নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণায় আচরণবিধি নিয়ে চলমান বিতর্কের বিষয়ে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘ মন্ত্রী হওয়া কি আমার অপরাধ? ফখরুল সাহেব রংপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ক্যাম্পেইন করল, কিন্তু আমি সেখানে যেতে পারলাম না। তিনিও মহাসচিব, আমিও মহাসচিব (সাধারণ সম্পাদক), এটা কি লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড? বেগম জিয়া করতে পারবেন, শেখ হাসিনা পারবেন না।’

শুক্রবার (২০ এপ্রিল) বিকেলে রাজধানীর কাকরাইলের একটি হোটেলে অনুষ্ঠিত ‘বদলে যাচ্ছে কক্সবাজার’ শীর্ষক এক অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

এসময় আওয়ামী লীগ সম্পাদক আরও বলেন, ‘পৃথিবীর সব সংসদীয় গণতান্ত্রিক দেশে যে কোন নির্বাচনে প্রধানমন্ত্রী ক্যাম্পেইন করতে পারেন। অথচ আমাদের দেশে মন্ত্রীও পারবেন না, এমপিও পারবেন না। সব দেশে যেটা হচ্ছে, আমাদের এখানে সেই সুযোগ কেন থাকবে না। আমরা নির্বাচন কমিশনকে একটি প্রস্তাবনা দিয়েছি। নির্বাচন কমিশন গ্রহণ করতেও পারে, নাও পারে।’

সমালোচকদের উদ্দেশ্যে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আমি সবাইকে বলবো, আমাকে কোণঠাসা করার চেষ্টা করে লাভ নেই। আমার সীমাবদ্ধতা আছে। কিন্তু আমি লড়াকু মানুষ। আমি কিন্তু হতাশ হবো না। সমালোচনা আমাকে শুদ্ধ করে। আর ভুল থাকলে আপনারা বিরূপ সমালোচনা যারা করেন, তারা একদিন বুঝবেন এই সমালোচনা সঠিক নয়। সমালোচনা যদি বাস্তবতা থাকে, রিজন থাকে সেটিকে আমি অবশ্যই মেনে নেবো। সেই মানসিকতা আমার আছে।’

সারা দেশে রাস্তাঘাটে চলমান কর্মযজ্ঞ ও দুর্ঘটনার প্রসঙ্গ তুলে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আমাদের সবারই একটু ধৈর্য থাকা উচিত। মেয়র হানিফ ফ্লাইওভারের নির্মাণ চলার সময়ে আড়াই ঘণ্টা সেখানে যানজটে ব্যয় হতো কিন্তু সেখানে এখন আড়াই মিনিট। আমাদের তো ধৈর্য ধরতে হবে। কেউ ধৈর্য ধরে না।’

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের যেখানেই যান সেখানেই রাস্তা-ব্রিজের কর্মযজ্ঞ চলছে। মায়েরও তো জন্মকালীন যন্ত্রণা থাকে। একটা রাস্তা হবে, ব্রিজ হবে এটির বার্থ পেইন আছে, সেটা মানবেন না কেন? আমাদের দেশের মিডিয়ার একটি অংশ এটাকে রাজনীতিতে নিয়ে যায়। যেখানে বেশি কাজ হচ্ছে, সেখানে বেশি আঘাত করছে।’

তিনি আরো বলেন, ‘অ্যাক্সিডেন্ট হচ্ছে, অস্বীকার করি না। আমি নিজেও অসহায়। অসহায়ত্ব আমার মধ্যেও কাজ করে। আমি কি মানুষ নই? আমি মন্ত্রী। আমি কি দায় এড়াতে পারবো? এতো মানুষের প্রাণহানি ইলিয়াস কাঞ্চন সাহেব জানেন কত চেষ্টা করেছি।’

সড়ক দুর্ঘটনা কমিয়ে আনতে আমাদের মানসিকতা পরিবর্তন জরুরি উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, ‘এদেশে কেউ রাস্তার শৃঙ্খলা মানেন না। ছোট ছোট ব্যাটারিচালিত গাড়িগুলোতে যাত্রীরা জানেন এগুলোতে উঠলে বিপদ আছে, তারপরও হাইওয়েতে এগুলোয় ওঠে। তারপর আমাদের চালকরাও কার আগে কে যাবে? কত ট্রিপ দিলে কত লাভ হবে। এই বিষয়টিই মাথায় থাকে। মানুষের জীবন নিয়ে আমরা খুব কম লোকই ভাবনা-চিন্তা করি।’

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 Alokito Teknaf
Handicraft By SHAH