বুধ. জুন ৩, ২০২০

আলোকিত টেকনাফ

বিশ্বজুড়ে টেকনাফের প্রতিচ্ছবি

সাইফুল করিমের স্বীকারোক্তির অন্যতম টেকনাফের হুন্ডি ফারুক চট্টগ্রামে আটক!

১ min read

ডেস্ক রিপোর্ট, আলোকিত টেকনাফঃ-

টেকনাফ থানা পুলিশের সঙ্গে গত মে মাসে বন্দুকযুদ্ধে নিহত শীর্ষ ইয়াবা কারবারি হাজী সাইফুল করিমের স্বীকারোক্তিতে উঠে আসে ৩৩ জন হুন্ডি ও ইয়াবা ব্যবসায়ীর নাম। বন্দুক যুদ্ধের পরবতীতে পুলিশ ওই ৩৩ জনের বিরুদ্ধে থানায় ৩টি মামলা দায়ের করেন। উক্ত মামলার ৩নং পলাতক আসামী হচ্ছে টেকনাফ পৌরসভার পুরান পল্লান পাড়ার হাফেজ আবু বক্করের ছেলে মো. ফারুক (৩০)। মামলা নং-১১৮/১৯,১১৯/১৯ ও ১২০/১৯। তারিখ- ৩১ মে ২০১৯ইং।
সম্প্রতি এই হুন্ডি মাফিয়া ফারুক চট্টগ্রামে আটক হয়েছে বলে সর্বত্র গুঞ্জন উঠেছে।
জানা গেছে, গত শনিবার চট্টগ্রামের হালিশহর এলাকা হতে ফারুক ইয়াবাসহ আইন শৃংখলা বাহিনীর হাতে আটক হয়েছেন বলে বিভিন্ন সুত্রে প্রকাশ।

এব্যাপারে ওই সব মামলার তদন্ত কর্মকর্তা টেকনাফ থানার উপ-পরিদর্শক (এস আই) জামসেদ এর কাছে জানতে চাইলে তিনি, ফারুক আটকের বিষয়টি জানেন না বলে জানান।
তিনি জানান, নিয়মানুযায়ী টেকনাফের কোন আসামী দেশের অন্য কোথাও আটক হলে সংশ্লিষ্ট থানায় খোঁজ নেওয়ার কথা। কিন্তু এক্ষেত্রে টেকনাফ থানায় অন্য কোন থানা থেকে যোগাযোগ করা হয়নি। তারপরও তিনি এব্যাপারে খোঁজ খবর নিচ্ছেন বলে জানান।

এদিকে, স্থানীয় সূত্র জানিয়েছে ফারুক মূলত টেকনাফ স্থল বন্দরে ব্যবসার ছদ্মাবরনে ইয়াবা ও হুন্ডির কারবার পরিচালনা করতো। কিন্তু হাজী সাইফুল করিম বন্দুক যুদ্ধে নিহত হওয়ার পর এঘটনায় পৃথক তিনটি মামলা হয়। ওই সব মামলায় ফারুকসহ ৩৩ জন আসামী রয়েছে। এরপরই আত্মগোপনে চলে যায় ফারক।

এছাড়া স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগ গত বছর কক্সবাজারের ৬৩ জন সহ সারাদেশের ৬২৫জন হুন্ডি ব্যবসায়ীর তালিকা প্রণয়ন করেছিল তাতে ফারুকের নাম রয়েছে বলে জানিয়েছে সূত্র।

আপনার মন্তব্য দিন
error: বাণিজ্যিক উদ্দেশ্যে এই সাইটের কোন উপাদান ব্যবহার করা সম্পূর্ণভাবে নিষিদ্ধ এবং কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয় অপরাধ।