বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২, ১০:৫৫ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
রোহিঙ্গা ক্যাম্পে নারী ও শিশু নির্যাতন রোধে ৮-এপিবিএন এর হটলাইন চমেক শিশু স্বাস্থ্য বিভাগের প্রধান হলেন অধ্যাপক ডা. রেজাউল করিম অবশেষে শুরু হচ্ছে টেকনাফ-কক্সবাজার সড়কের নির্মাণ কাজ উখিয়া ক্যাম্পে ডাকাতি প্রস্তুতিকালে অস্ত্রসহ ছয় রোহিঙ্গা গ্রেফতার বঙ্গোপসাগরে ভাসমান স্বর্ণ: বদলে দিতে পারে দেশের ভাগ্য! টেকনাফে পাহাড় থেকে অস্ত্রসহ ২ রোহিঙ্গা ডাকাত গ্রেফতার অপহৃত মিয়ানমারের দুই শিক্ষক বিজিপির নিকট হস্তান্তর উখিয়া রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের গুলিতে তালিকাভূক্ত সন্ত্রাসী নিহত মিয়ানমার থেকে পাচারকালে ১কেজি আইসসহ পাচারকারী গ্রেফতার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ‍‍‌‌‌‌‌‍’বাড়ি চলো’ ক্যাম্পেইন চলছে

টেকনাফে আইন-শৃঙ্খলা কমিটির সভায় অধিকাংশ জনপ্রতিনিধি অনুপস্থিত

Reporter Name
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ৩১ মে, ২০১৮
  • ৩৪৮ Time View

নিউজ ডেস্কঃ-

কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলায় আইন-শৃঙ্খলা কমিটির মাসিক ‘চোরাচালানবিরোধী’ সভা বুধবার অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে উপজেলার একটি পৌরসভা ও ছয়টি ইউনিয়নের মাত্র দুজন জনপ্রতিনিধি উপস্থিত থাকলেও অধিকাংশ জনপ্রতিনিধি অনুপস্থিত ছিলেন। টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) কার্যালয়ে সভাটি অনুষ্ঠিত হয়।

এর আগে প্রতিবারই উপজেলা মিলনায়তনে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়ে আসছিল। তবে ঢাকায় একটি প্রশিক্ষণে থাকায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. রবিউল হাসান নিজেও অনুপস্থিত ছিলেন। সভায় আরও অনুপস্থিত ছিলেন, স্থানীয় সংসদ সদস্য আব্দুর রহমান বদি, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জাফর আহমদ, ভাইস চেয়ারম্যান মৌলভী রফিক উদ্দিন, টেকনাফ পৌরসভার মেয়র মোহাম্মদ ইসলাম, সাবরাং ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান নূর হোসেন, টেকনাফ সদরের চেয়ারম্যান শাহা জাহান মিয়া, বাহারছড়ার ইউপির চেয়ারম্যান মৌলভী আজিজ উদ্দিন ও সেন্ট মার্টিন ইউপির চেয়ারম্যান নূর আহমদ। এর মধ্যে মেয়র মোহাম্মদ ইসলাম ও চেয়ারম্যান নূর আহমদ ছাড়া সব জনপ্রতিনিধির নাম মাদক ব্যবসার তালিকায় রয়েছে।

ভারপ্রাপ্ত ইউএনও ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) প্রণয় চাকমার সভাপতিত্বে সভায় উপস্থিত ছিলেন, টেকনাফ থানা-পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রনজিত কুমার বড়ুয়া, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান তাহেরা বেগম, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) প্রতিনিধি মো. নজরুল ইসলাম, কোস্টগার্ডের প্রতিনিধি এম আনোয়ারুল ইসলাম, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর টেকনাফের পরিদর্শক মো. মোশারফ হোসেন, কৃষি কর্মকর্তা মো. শহীদুল ইসলাম, হোয়াইক্যং ইউপির চেয়ারম্যান নূর আহমদ আনোয়ারী, হ্নীলার প্যানেল চেয়ারম্যান ও ৬ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আবুল হোসেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ সভাপতি জহির হোসেন, শাহপরীর দ্বীপের আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক শাখার সভাপতি সোনা আলী প্রমুখ।

কয়েকজন সরকারি কর্মকর্তা বলেন, মাদকবিরোধী অভিযানে এ পর্যন্ত সাবরাং ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আক্তার কামাল ও টেকনাফ পৌরসভার ৩ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মো. একরামুল হক মারা যাওয়ার পর এই প্রভাব পড়েছে বলে মনে করা হচ্ছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক কর্মকর্তা বলেন, টেকনাফের অনেক জনপ্রতিনিধির নাম মাদক ব্যবসার তালিকায় থাকায় তাঁরা উপজেলা আইন-শৃঙ্খলা কমিটির ‘চোরাচালানবিরোধী’ সভায় অনুপস্থিত ছিলেন। ধারণা করা হচ্ছে আটক এড়াতে তারা আত্মগোপনে রয়েছেন।

টেকনাফ থানার ওসি রনজিত কুমার বড়ুয়া বলেন, মাদকবিরোধী চলমান অভিযানকে স্বাগতম জানিয়ে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে সহযোগিতা করুন। আজকের সভায় অধিকাংশ জনপ্রতিনিধিরা অনুপস্থিত ছিলেন।

ভারপ্রাপ্ত ইউএনও ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) প্রণয় চাকমা বলেন, উপজেলা মাসিক আইন-শৃঙ্খলা কমিটির চোরাচালানবিরোধী সভায় হঠাৎ করে জনপ্রতিনিধিদের অনুপস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে।

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 Alokito Teknaf
Handicraft By SHAH