সোমবার, ০৪ জুলাই ২০২২, ০৬:৩৪ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
কক্সবাজারে পুলিশের উপিস্থিতিতে ছাত্রলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা টেকনাফে ৭ কোটি টাকার আইস ও ইয়াবা উদ্ধার, আটক ১ টেকনাফ স্থলবন্দর থেকে কর/শুল্ক ফাঁকি দিয়ে পাচারকালে ৭২লাখ টাকার অবৈধ মালামাল জব্দ- গ্রেফতার ৩ উখিয়ায় ৫০ হাজার ইয়াবা উদ্ধার : এক রোহিঙ্গাসহ তিন জন গ্রেফতার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে নারী ও শিশু নির্যাতন রোধে ৮-এপিবিএন এর হটলাইন চমেক শিশু স্বাস্থ্য বিভাগের প্রধান হলেন অধ্যাপক ডা. রেজাউল করিম অবশেষে শুরু হচ্ছে টেকনাফ-কক্সবাজার সড়কের নির্মাণ কাজ উখিয়া ক্যাম্পে ডাকাতি প্রস্তুতিকালে অস্ত্রসহ ছয় রোহিঙ্গা গ্রেফতার বঙ্গোপসাগরে ভাসমান স্বর্ণ: বদলে দিতে পারে দেশের ভাগ্য! টেকনাফে পাহাড় থেকে অস্ত্রসহ ২ রোহিঙ্গা ডাকাত গ্রেফতার

পাসর্পোট পেতে মরিয়া রোহিঙ্গারা, বিড়ম্বনায় স্থানীয় জনগণ

Reporter Name
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ৩০ আগস্ট, ২০১৮
  • ১৫৮ Time View

কান্তা আইচ রায় :

ভুয়া জন্ম সনদ আর জাতীয় পরিচয়পত্র দিয়ে বাংলাদেশি পাসপোর্ট বানানোর চেষ্টা করছে রোহিঙ্গারা। নানা উপায়ে বিদেশ যেতে বাংলাদেশি পাসপোর্ট পেতে মরিয়া এসব রোহিঙ্গারা। এতে স্থানীয়রা পাসপোর্ট পেতে বিড়ম্বনায় শিকার হচ্ছে । পাসপোর্ট অধিদপ্তরের কর্মকর্তা বলে মনে করেন, কিছু অসাধু পুলিশ কর্মকর্তার যোগসাজশে রোহিঙ্গারা অনুকূল পুলিশ রিপোর্টও পাচ্ছেন । তবে পুলিশ বলছে, রোহিঙ্গাদের পাসপোর্ট পেতে যারাই সহায়তা করবে তাদেরকে আইনের আওতায় আনা হবে।

কক্সবাজার আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের তথ্য অনুযায়ী, গত ৬ মাসে সন্দেহভাজন ৩ শতাধিক রোহিঙ্গার পাসপোর্ট ফরম জব্দ করার পাশাপাশি ১২ জনকে আটকের পর ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে সাজা দেয়া হয়েছে।

নতুন-পুরাতন মিলিয়ে কক্সবাজারের উখিয়া ও টেকনাফে আশ্রয় নিয়েছে ১১ লাখের বেশি রোহিঙ্গা। নানা উপায়ে বিদেশ যেতে বাংলাদেশি পাসপোর্ট পেতে মরিয়া এসব রোহিঙ্গারা। দালাল ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের মাধ্যমে ভুয়া জন্ম সনদ আর জাতীয় পরিচয়পত্র সংগ্রহ করে পাসপোর্টের আবেদন করছেন তারা। গেলো কয়েক মাসে কর্মকর্তাদের তৎপরতা ও ৬টি ধাপে যাচাই বাছাইয়ে কক্সবাজার আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে জব্দ করা হয়েছে কয়েকশ রোহিঙ্গার পাসপোর্টের আবেদন।

এদিকে রোহিঙ্গাদের কারণে স্থানীয়দের পাসপোর্ট করতে ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে। রয়েছে পুলিশি হয়রানির ও দীর্ঘসূত্রিতার অভিযোগ।

স্থানীয়রা বলছেন, আগে জন্ম নিবন্ধনের খুব বেশি প্রয়োজন পড়তো না। কিন্তু রোহিঙ্গারা আসার পর থেকে জন্ম নিবন্ধনের প্রয়োজনীয়তা বেড়ে গেছে। চেয়ারম্যানের এনআইডি পর্যন্ত প্রয়োজন পড়ছে।

যাচাই-বাছাইয়ের ক্ষেত্রে পুলিশ সঠিক দায়িত্ব পালন করলে রোহিঙ্গাদের কোনোভাবেই পাসপোর্ট পাওয়ার সুযোগ নেই বলে জানালেন কক্সবাজার আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস।

কক্সবাজার আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের সহকারী পরিচালক আবু নাঈম বলেছেন, জনপ্রতিনিধি এবং পুলিশ যদি সুষ্ঠুভাবে তাদের কাজ করে তাহলে রোহিঙ্গাদের পার্সপোট পাবার সম্ভাবনা থাকে না।

কক্সবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আফরুজুল হক টুটুল বলেছেন, রোহিঙ্গাদের পাসপোর্ট পেতে যারাই সহায়তা করবে তাদেরকে আইনের আওতায় আনা হবে। আমরা অনেককে গ্রেফতার করেছি। অনেক পাসপোর্ট জব্দ করা হয়েছে। রোহিঙ্গারা যাতে কোনোভাবে পাসপোর্ট না নিতে পারে সেই জন্য জিরো টলারেন্স গ্রহণ করেছি। সূত্র : সময় টিভি

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 Alokito Teknaf
Handicraft By SHAH