শুক্রবার, ০১ জুলাই ২০২২, ০১:৫৩ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
রোহিঙ্গা ক্যাম্পে নারী ও শিশু নির্যাতন রোধে ৮-এপিবিএন এর হটলাইন চমেক শিশু স্বাস্থ্য বিভাগের প্রধান হলেন অধ্যাপক ডা. রেজাউল করিম অবশেষে শুরু হচ্ছে টেকনাফ-কক্সবাজার সড়কের নির্মাণ কাজ উখিয়া ক্যাম্পে ডাকাতি প্রস্তুতিকালে অস্ত্রসহ ছয় রোহিঙ্গা গ্রেফতার বঙ্গোপসাগরে ভাসমান স্বর্ণ: বদলে দিতে পারে দেশের ভাগ্য! টেকনাফে পাহাড় থেকে অস্ত্রসহ ২ রোহিঙ্গা ডাকাত গ্রেফতার অপহৃত মিয়ানমারের দুই শিক্ষক বিজিপির নিকট হস্তান্তর উখিয়া রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের গুলিতে তালিকাভূক্ত সন্ত্রাসী নিহত মিয়ানমার থেকে পাচারকালে ১কেজি আইসসহ পাচারকারী গ্রেফতার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ‍‍‌‌‌‌‌‍’বাড়ি চলো’ ক্যাম্পেইন চলছে

প্রধানমন্ত্রীর ডাকে বঙ্গভবনে কক্সবাজার যুবলীগের সভাপতি-সম্পাদক

Reporter Name
  • Update Time : মঙ্গলবার, ৫ জুন, ২০১৮
  • ২৯২ Time View

নিউজ ডেস্কঃ-

চলমান মাদক বিরোধী অভিযানে র‌্যাবের সাথে কথিত বন্দুকযুদ্ধে টেকনাফ পৌরসভার কাউন্সিলর একরামুল হক নিহতের ঘটনায় প্রধানমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর ডাকে ঢাকা গেছেন কক্সবাজার জেলা যুবলীগের সভাপতি সোহেল আহামদ বাহাদুর ও সাধারণ সম্পাদক শহীদুল হক সোহেল। মঙ্গলবার (৫জুন) তাঁরা দু’জন বিমানে করে ঢাকা গেছেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে সাধারণ সম্পাদক শহীদুল হক সোহেল সিবিএনকে জানান, একরাম নিহতের ঘটনায় তদন্তের উদ্যোগ নিয়ে সরকার। এর অংশ হিসেবে সোমবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে আমাদের দু’জনকে ডেকেছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও স্বররাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল আামাদের সাথে কথা বলবেন জানানো হয়েছে।

শহীদুল হক সোহেল বলেন, ডাক পেয়ে আমরা দু’জন ঢাকায় পৌঁছেছি। আজ রাত ৯টায় স্বররাষ্ট্রমন্ত্রী আমাদের সাথে বসবেন বলে সিডিউল হয়েছে। আগামীকাল প্রধানমন্ত্রী আমাদের সাথে বসবেন বলে কথা রয়েছে।

জেলা যুবলীগের সভাপতি সোহেল আহামদ বাহাদুর সিবিএনকে বলেন, একরামুল হক নিহতের ঘটনায় সারা দেশজুড়ে তোলপাড় চলছে। একরামের ইয়াবা ব্যবসার সংশ্লিষ্টতা না থাকা ও তার মারা যাওয়ার মুহূর্তের অডিও রেকর্ড ভাইরাল হওয়ায় কঠোর সমালোচনা চলছে। এর প্রেক্ষিতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিষয়টি অত্যন্ত সিরিয়াসলি নিয়েছেন। তিনি ঘটনা তদন্তের জন্য নির্দেশ দিয়েছেন। একরাম সম্পর্কে হয়তো আমাদের কাছে জানতে চাওয়া হবে। একরাম সম্পর্কে আমরা যা জানি সব প্রধানমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে বলবো।

তিনি বলেন, আমাদেরও দাবি একরাম নিহতের ঘটনায় সুষ্ঠু তদন্ত হোক। সে নিরপরাধ হয়ে থাকে তাহলে এই ঘটনার সাথে যারা যারা জড়িত তাদের সর্বোচ্চ শাস্তি আমরা দাবি করবো।

এদিকে কক্সবাজার সিটি কলেজের প্রভাষক জমির জামির কর্তৃক আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরকে ‘কাউয়া’ বলার ঘটনায় প্রসঙ্গে জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক শহীদুল হক সোহেল বলেন, জমির জামির নামে ওই ব্যক্তি যুবলীগের কেউ নয়। আর দলের শীর্ষ নেতাকে নিয়ে এমন অশালীন কথা বলা কেউ আগামী যুবলীগে ঢুকতে পারবে না।

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 Alokito Teknaf
Handicraft By SHAH