সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৫:৫৮ পূর্বাহ্ন

হোয়াইক্যং এর কুখ্যাত খুনী ও মাদকগডফাদার মহিউদ্দিন গ্রেপ্তার

Reporter Name
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮
  • ১৯৩ Time View

স্টাফ রিপোর্টার, টেকনাফঃ-

প্রফেসর সামসুল আলম হত্যা মামলার ২নং আসামি মহিউদ্দিন যৌত প্রশাসনের হাতে অবশেষে আটক হয়েছে। ১২ সেপ্টেম্বর সন্ধায় হ্নীলা স্টেশন এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়। সূত্রে জানা যায়, মহিউদ্দিন ও জালাল সিন্ডিকেট দীর্ঘদিন যাবৎ ইয়াবা ব্যবসায় চালিয়ে যাচ্ছেন। তার বিরুদ্ধে একাধিক নিষিদ্ধ মাদকদ্রব্যের মামলা রয়েছে। মামলায় আটক হওয়ায় দীর্ঘদিন যাবত জেলহাজতে থাকলেও ক্ষমতার দাপটে বের হয়ে আসেন এবং প্রকাশ্যে মাদকদ্রব্য ব্যবসায় জড়িয়ে পড়েন। তার বাবার নাম মৃত ইলিয়াছ। মহিউদ্দিন হোয়াইক্যং ইউনিয়নের (খারাংখালী) পশ্চিম মহেশখালীয়া পাড়ার বাসিন্দা। স্বনামধন্য টেকনাফ সরকারি ডিগ্রী কলেজের বাংলা বিভাগের প্রভাষক জনাব সামসুল আলম হত্যা মামলা নং : জি.আর. ৬৩৫/২০১৪। তবে ধৃত ব্যাক্তি মামলায় জামিনে আছেন বলে জানা যায়। উল্লেখ্য,টেকনাফ ডিগ্রী কলেজের অধ্যাপক শামসুল আলম নিহত হন ২০১৪ সালের ৩১ অক্টোবর। তিনি হোয়াইক্যং মহেষখালীয়া পাড়ার মৃত ফজল করিমের ছেলে। হোয়াইক্যংয়ের পশ্চিম মহেষখালীয়াপাড়া এলাকায় জমি বিরোধের জের ধরে সন্ত্রাসী হামলায় আহত হয়ে চমেক হাসপাতালে নেওয়ার পথে তিনি মৃত্যুবরন করেছিলেন। এসময় তিনি মাথায় প্রচন্ড আঘাতপ্রাপ্ত হলে তাঁকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে চমেক হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যুবরন করেন। এঘটনার একদিন পর নিহত প্রফেসর সামসুল আলমের সহধর্মিণী বাদী হয়ে ৩৪ জনকে আসামী করে হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলার আইও তৎকালীন টেকনাফ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) কবির হোসেন দীর্ঘ তদন্ত শেষে ২০১৫ সালের সেপ্টেম্বর মাসে ৩১ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র প্রদান করেছিলেন।

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 Alokito Teknaf
Handicraft By SHAH