সোমবার, ০৮ অগাস্ট ২০২২, ০৪:০৫ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম

পেকুয়ায় ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষ: পুলিশসহ অাহত ৩, ছাত্রলীগ নেতা আটক

Reporter Name
  • Update Time : শনিবার, ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৭
  • ৪২৪ Time View

পেকুয়ায় ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষ হয়েছে।  পুলিশসহ ৩জন অাহত হয়েছে ৩জন । ১৬ ডিসেম্বর (শনিবার) পেকুয়া বাজারে এ ঘটনা ঘটে।
অাহতেরা হলেন পেকুয়া থানার উপ-পরিদর্শক বিপুল চন্দ্র রায় ও দুই কলেজ ছাত্রী। তাৎক্ষনিকভাবে তাদের নাম পাওয়া যায়নি। এ ঘটনায় ছাত্রলীগের এক গ্রুপের নেতা এইচ.এম শওকতকে অাটক করেছে পুলিশ।
ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, সকালে বিজয় মেলার র্যালী করতে উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি কপিল উদ্দিন বাহাদুর সাধারণ সম্পাদক এহেতেসামুল হক একটি পক্ষ শওকত এর নেতৃত্বে অারেকটি পক্ষ পেকুয়া বাজারে অবস্থান নেয়। এ সময় দু’পক্ষে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। উপপরিদর্শক বিপুল চন্দ্র রায় একদল পুলিশ নিয়ে ঘটনা নিয়ন্ত্রনে অানার চেষ্টা করেন। ওই সময় শওকত গ্রুপের হামলায় তিনিসহ অারো কলেজ ছাত্রী অাহত হয়। পরে উপপরিদর্শককে পেকুয়া সরকারী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
ছাত্রলীগ সভাপতি কপিল উদ্দিন জানান, শওকত ছাত্রলীগের কেউ নয়। বিজয় দিবসে র্যালীর নাম করে নাশকতার চেষ্টা করছিল। অামরা ছাত্রলীগের নেতৃত্বে তা প্রতিহত করতে গেলে তার নেতৃত্বে কয়েকজন উৎশৃংখল যুবক অামাদের উপর হামলা চালায়। পুলিশ তাৎক্ষনিকভাবে তাদেরকে নিয়ন্ত্রন করতে গেলে তাদের উপরও হামলা চালায়। এ ঘটনায় থানার সৎ অফিসার বিপুল চন্দ্র অাহত হয়। অন্যদিকে যে দু’কলেজ ছাত্রী অাহত হয়েছে তারাও বাজার দিয়ে চলে যাচ্ছিলেন।
শওকত পক্ষের এক অনুসারী বলেন, সকালে তারা বিজয় র্যালীর অায়োজন করছিলেন। বিশাল বহর নিয়ে বিজয় র্যারী শুরু করার পর্যায়ে কপিল ও এহেতেসামের নেতৃত্বে অামাদের উপর হামলা চালায়। ওই সময় তাদের হামলায় পুলিশ সদস্যসহ তাদের ৩অনুসারী অাহত হয়।
পেকুয়া থানার পরিদর্শক জহিরুল ইসলাম খান বলেন, বিজয় দিবস উপলক্ষে পেকুয়া বাজারে শৃংখলা বজায় রাখতে পুলিশের নিয়মিত টহল ছিল বাজারে। ওই সময় ছাত্রলীগের দু’গ্রুপ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়লে পুলিশ শান্তি শৃংখলা বজায় রাখার চেষ্টা করে। সেই সময় এসঅাই বিপুল অাহত হয়। অাটক করা হয় শওকত নামের একজনকে। হামলার জড়িতদের  বিরুদ্ধে অাইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 Alokito Teknaf
Handicraft By SHAH